ঢাকা ০১:০৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লুটপাট আ’লীগের কাছে অলিখিত সংবিধান : গয়েশ্বর

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৯:০৫:০৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪ ১৩ বার পড়া হয়েছে
ডেইলি আর্থ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আওয়ামী লীগের কাছে লুটপাট অলিখিত সংবিধান বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির মতো টাকা লুট করে পাচার করছে। বাংলাদেশ ব্যাংক কি নিষিদ্ধপল্লি যে, সেখানে সাংবাদিক ঢুকতে পারবেন না? একটা হ্যাক হয়েছে, তাদের চেহারা দেখেই বোঝা যায়।

শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনের একটি রেস্টুরেন্টে জিয়া মঞ্চের ঢাকা বিভাগীয় সম্মেলনে এসব কথা বলেন গয়েশ্বর। তিনি বলেন, চাকরি হারানোর ভয়ে গণমাধ্যমকর্মীরা অনেক সত্য চেপে যাচ্ছেন।

বিএনপির এ নেতা বলেন, আমি ভারতের পণ্য বয়কটের কথা বলব না। তবে কেনার আগে নিজের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করবেন। কারণ, ভারতের ৫২৭টি পণ্য ইউরোপ বন্ধ করে দিয়েছে। পাশাপাশি দেশের জন্য ক্ষতিকর আওয়ামী লীগকেও বর্জন করতে হবে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগে মুক্তিযোদ্ধা নেই, তা বলা যাবে না। তবে যারা আছে, বেশির ভাগই প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আওয়ামী লীগ ফেরিওয়ালার মতো বিক্রি করছে।’

গয়েশ্বর বলেন, দেশের অর্থনীতি যে অবস্থায় দাঁড়িয়েছে, ক’দিন পরে মানুষ টের পাবে। কোষাগার খালি, ডলারের অভাবে ব্যবসায়ীরা এলসি খুলতে পারছে না। শিল্পকারখানা বন্ধ হতে বসেছে। চাকরির বাজার হাহাকার। বন্ধ নেই লুটপাট। লুটপাট করা সংবিধানে লেখা নেই। আওয়ামী লীগের কাছে লুটপাট যেনো অলিখিত সংবিধান।

দলের আন্দোলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপিতে ভেজাল মাল থাকলে আন্দোলনের পথ আরও লম্বা হবে। সব ভেদাভেদ ভুলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালামের সভাপতিত্বে আরও বক্তৃতা করেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

লুটপাট আ’লীগের কাছে অলিখিত সংবিধান : গয়েশ্বর

আপডেট সময় : ০৯:০৫:০৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

আওয়ামী লীগের কাছে লুটপাট অলিখিত সংবিধান বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির মতো টাকা লুট করে পাচার করছে। বাংলাদেশ ব্যাংক কি নিষিদ্ধপল্লি যে, সেখানে সাংবাদিক ঢুকতে পারবেন না? একটা হ্যাক হয়েছে, তাদের চেহারা দেখেই বোঝা যায়।

শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনের একটি রেস্টুরেন্টে জিয়া মঞ্চের ঢাকা বিভাগীয় সম্মেলনে এসব কথা বলেন গয়েশ্বর। তিনি বলেন, চাকরি হারানোর ভয়ে গণমাধ্যমকর্মীরা অনেক সত্য চেপে যাচ্ছেন।

বিএনপির এ নেতা বলেন, আমি ভারতের পণ্য বয়কটের কথা বলব না। তবে কেনার আগে নিজের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করবেন। কারণ, ভারতের ৫২৭টি পণ্য ইউরোপ বন্ধ করে দিয়েছে। পাশাপাশি দেশের জন্য ক্ষতিকর আওয়ামী লীগকেও বর্জন করতে হবে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগে মুক্তিযোদ্ধা নেই, তা বলা যাবে না। তবে যারা আছে, বেশির ভাগই প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আওয়ামী লীগ ফেরিওয়ালার মতো বিক্রি করছে।’

গয়েশ্বর বলেন, দেশের অর্থনীতি যে অবস্থায় দাঁড়িয়েছে, ক’দিন পরে মানুষ টের পাবে। কোষাগার খালি, ডলারের অভাবে ব্যবসায়ীরা এলসি খুলতে পারছে না। শিল্পকারখানা বন্ধ হতে বসেছে। চাকরির বাজার হাহাকার। বন্ধ নেই লুটপাট। লুটপাট করা সংবিধানে লেখা নেই। আওয়ামী লীগের কাছে লুটপাট যেনো অলিখিত সংবিধান।

দলের আন্দোলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপিতে ভেজাল মাল থাকলে আন্দোলনের পথ আরও লম্বা হবে। সব ভেদাভেদ ভুলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালামের সভাপতিত্বে আরও বক্তৃতা করেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ প্রমুখ।