ঢাকা ০১:০২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হিন্দি ছবি আমদানি বন্ধ করবেন ডিপজল, কলকাতার ছবিতে আপত্তি নেই

বিনোদন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০২:০২:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪ ১৯ বার পড়া হয়েছে
ডেইলি আর্থ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল। নতুন দায়িত্ব পেয়েই হিন্দি সিনেমা আমদানি ঠেকানোর চেষ্টাও করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। এর আগেও তিনি হিন্দি সিনেমা আমদানির বিপক্ষে শক্ত অবস্থানে ছিলেন।

আপনি সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন এখন বাংলাদেশে হিন্দি সিনেমা আমদানি হবে? এমন প্রশ্নে গণমাধ্যমে অভিনেতার ভাষ্য, দেখেন হিন্দি ছবি আমদানি কীভাবে হলো সেটাই আমি জানি না। এই কমিটি বলে তারা পক্ষে ছিল না, ওই সংগঠন বলে তারা পক্ষে ছিল না। আর লভ্যাংশ নেওয়ার তো প্রশ্নই ওঠে না। আমরা তো হিন্দি ছবি আমদানির পক্ষে না। হিন্দি ছবি যেন আমদানি না হয় সেই চেষ্টা করব। আমরা দেশের চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিকে চাঙ্গা করতে চাই। হিন্দি ছবিকে জায়গা ছেড়ে দিতে চাই না। কলকাতার বাংলা ছবি আসুক আমার আপত্তি নেই।

জিপজল আরও বলেন, হিন্দি সংস্কৃতি আমাদের দেশীয় সংস্কৃতির জন্য খারাপ। দেশীয় সংস্কৃতি ধ্বংস করে দেবে হিন্দি ছবির এমন আমদানি অব্যাহত থাকলে। মুখ থুবড়ে পড়বে দেশীয় চলচ্চিত্র। যারা বলছেন হিন্দি ছবি হল সচল রাখে, তারা সঠিক বলছেন না। নিয়ম করে দেশীয় সিনেমা মুক্তি দিলে হল এমনিতেই সচল থাকবে। আমি সেটাই করিয়ে দেখাব। এক বছরের মধ্যে আপনারা পরিবর্তন দেখতে পারবেন।

দেশ জুড়ে জেলা শহরগুলোতে মাল্টিপ্লেক্স নির্মাণ করবেন, বলেও জানিয়েছেন মনোয়ার হোসেন ডিপজল।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

হিন্দি ছবি আমদানি বন্ধ করবেন ডিপজল, কলকাতার ছবিতে আপত্তি নেই

আপডেট সময় : ০২:০২:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল। নতুন দায়িত্ব পেয়েই হিন্দি সিনেমা আমদানি ঠেকানোর চেষ্টাও করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। এর আগেও তিনি হিন্দি সিনেমা আমদানির বিপক্ষে শক্ত অবস্থানে ছিলেন।

আপনি সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন এখন বাংলাদেশে হিন্দি সিনেমা আমদানি হবে? এমন প্রশ্নে গণমাধ্যমে অভিনেতার ভাষ্য, দেখেন হিন্দি ছবি আমদানি কীভাবে হলো সেটাই আমি জানি না। এই কমিটি বলে তারা পক্ষে ছিল না, ওই সংগঠন বলে তারা পক্ষে ছিল না। আর লভ্যাংশ নেওয়ার তো প্রশ্নই ওঠে না। আমরা তো হিন্দি ছবি আমদানির পক্ষে না। হিন্দি ছবি যেন আমদানি না হয় সেই চেষ্টা করব। আমরা দেশের চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিকে চাঙ্গা করতে চাই। হিন্দি ছবিকে জায়গা ছেড়ে দিতে চাই না। কলকাতার বাংলা ছবি আসুক আমার আপত্তি নেই।

জিপজল আরও বলেন, হিন্দি সংস্কৃতি আমাদের দেশীয় সংস্কৃতির জন্য খারাপ। দেশীয় সংস্কৃতি ধ্বংস করে দেবে হিন্দি ছবির এমন আমদানি অব্যাহত থাকলে। মুখ থুবড়ে পড়বে দেশীয় চলচ্চিত্র। যারা বলছেন হিন্দি ছবি হল সচল রাখে, তারা সঠিক বলছেন না। নিয়ম করে দেশীয় সিনেমা মুক্তি দিলে হল এমনিতেই সচল থাকবে। আমি সেটাই করিয়ে দেখাব। এক বছরের মধ্যে আপনারা পরিবর্তন দেখতে পারবেন।

দেশ জুড়ে জেলা শহরগুলোতে মাল্টিপ্লেক্স নির্মাণ করবেন, বলেও জানিয়েছেন মনোয়ার হোসেন ডিপজল।