ঢাকা ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইন্দোনেশিয়ার মধ্যাঞ্চলে বন্যায় ১৫ জনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৯:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মে ২০২৪ ৮ বার পড়া হয়েছে
ডেইলি আর্থ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ইন্দোনেশিয়ার মধ্যাঞ্চলে বন্যা এবং ভূমিধসে কমপক্ষে ১৫ জন মারা গেছেন। এছাড়া বহু বাড়ি-ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, রাস্তাঘাট ভেসে গেছে, শতাধিক বাড়ি-ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। খবর এএফপির।

শনিবার (৪ মে) ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ বিষয়ক সংস্থা এ তথ্য জানিয়েছে।

এছাড়া বর্ষাকালে ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিধসের প্রবণতা বেড়ে যায়। কিছু এলাকায় বন উজাড়ের কারণে পরিস্থিতি আরও খারাপ হচ্ছে। দীর্ঘ সময় মুষলধারে বৃষ্টির কারণে কিছু এলাকায় আকস্মিক বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ প্রশমন সংস্থার (বিএনপিবি) মুখপাত্র আবদুল মুহারি এক বিবৃতিতে বলেন, শুক্রবার স্থানীয় সময় মধ্যরাত ১টার কিছু সময় পরে দক্ষিণ সুলাওয়েসির লুউউ এলাকায় ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে।

তিনি বলেন, লুউউ এলাকায় ভূমিধস এবং বন্যায় প্রায় ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। পরবর্তী সময়ে আরও একজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। সংস্থাটি জানিয়েছে, বন্যায় ৪২টি বাড়ি ভেসে গেছে, চারটি রাস্তা এবং একটি সেতু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

বন্যার কারণে শতাধিক মানুষকে মসজিদ বা অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া ১ হাজার ৩শর বেশি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং তাদের সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে।

শুক্রবার দক্ষিণ সুলাওয়েশি প্রদেশের অপর একটি এলাকায় কমপক্ষে একজন নিহত এবং দুজন আহত হয়েছে। এর আগে গত মার্চে সুমাত্রা দ্বীপে বন্যা এবং ভূমিধসে কমপক্ষে ৩০ জন নিহত হন। খোঁজ হন আরও বেশ কয়েকজন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ইন্দোনেশিয়ার মধ্যাঞ্চলে বন্যায় ১৫ জনের মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৪:৪৯:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মে ২০২৪

ইন্দোনেশিয়ার মধ্যাঞ্চলে বন্যা এবং ভূমিধসে কমপক্ষে ১৫ জন মারা গেছেন। এছাড়া বহু বাড়ি-ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, রাস্তাঘাট ভেসে গেছে, শতাধিক বাড়ি-ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। খবর এএফপির।

শনিবার (৪ মে) ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ বিষয়ক সংস্থা এ তথ্য জানিয়েছে।

এছাড়া বর্ষাকালে ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিধসের প্রবণতা বেড়ে যায়। কিছু এলাকায় বন উজাড়ের কারণে পরিস্থিতি আরও খারাপ হচ্ছে। দীর্ঘ সময় মুষলধারে বৃষ্টির কারণে কিছু এলাকায় আকস্মিক বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ প্রশমন সংস্থার (বিএনপিবি) মুখপাত্র আবদুল মুহারি এক বিবৃতিতে বলেন, শুক্রবার স্থানীয় সময় মধ্যরাত ১টার কিছু সময় পরে দক্ষিণ সুলাওয়েসির লুউউ এলাকায় ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে।

তিনি বলেন, লুউউ এলাকায় ভূমিধস এবং বন্যায় প্রায় ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। পরবর্তী সময়ে আরও একজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। সংস্থাটি জানিয়েছে, বন্যায় ৪২টি বাড়ি ভেসে গেছে, চারটি রাস্তা এবং একটি সেতু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

বন্যার কারণে শতাধিক মানুষকে মসজিদ বা অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া ১ হাজার ৩শর বেশি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং তাদের সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে।

শুক্রবার দক্ষিণ সুলাওয়েশি প্রদেশের অপর একটি এলাকায় কমপক্ষে একজন নিহত এবং দুজন আহত হয়েছে। এর আগে গত মার্চে সুমাত্রা দ্বীপে বন্যা এবং ভূমিধসে কমপক্ষে ৩০ জন নিহত হন। খোঁজ হন আরও বেশ কয়েকজন।