ঢাকা ১২:১০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঢাকায় ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ ১০ মে

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১২:২৮:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪ ১৩ বার পড়া হয়েছে
ডেইলি আর্থ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ইসরায়েলি আগ্রাসন বন্ধ ও স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের দাবিতে ১০ মে (শুক্রবার) ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করবে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। শুক্রবার বাদ জুমা রাজধানীর বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে ইসলামী আন্দোলনের ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ কমিটির উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালন করা হবে।

বুধবার (৮ মে) ইসলামী আন্দোলনের সহকারী মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ কমিটির সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ আলম ও সেক্রেটারি ডা. শহিদুল ইসলাম এক যৌথ বিবৃতিতে শুক্রবারের বিক্ষোভ সমাবেশ সফল করার আহ্বান জানিয়েছেন।

তারা বলেছেন, বিশ্বের বিষফোঁড়া ইসরায়েলকে সম্মিলিতভাবে রুখে দিতে হবে। ইসরায়েলি আগ্রাসন বন্ধ করে ফিলিস্তিনকে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র ঘোষণার দাবিকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিয়ে তা আদায় করতে হবে।

শিক্ষা কারিকুলাম ঢেলে সাজানোর দাবি
দেশের বৃহত্তম জনগোষ্ঠী মুসলমানদের চিন্তা-চেতনার আলোকে শিক্ষা কারিকুলামকে ঢেলে সাজানোর দাবি জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

বুধবার (৮ মে) কুমিল্লার তিতাস উপজেলার শাহপুর মাদরাসা মাঠে ইসলামী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ইসলামবিরোধী শিক্ষা কারিকুলাম মেনে নেওয়া হবে না। কারিকুলাম থেকে শরীফ থেকে শরীফার গল্প বাদ দিতে হবে। কোনোভাবেই সমকামিতাকে প্রমোট করার সুযোগ দেওয়া হবে না।

মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেন, শিক্ষা সিলেবাস চরম পর্যায়ে গিয়ে ঠেকেছে। এ শিক্ষা সিলেবাস দেখে বোঝার কোনো উপায় নেই যে, এটা মুসলিম দেশের শিক্ষা কারিকুলাম।

ইসলামী আন্দোলনের আমির বলেন, দেশ স্বাধীন হয়েছে ইসলামের ভিত্তিতে। ইসলাম না থাকলে দেশ ও দেশের স্বাধীনতা থাকবে না। ভাষার জন্য দেশ স্বাধীন হয়নি। এজন্য ভারতের চক্রান্তে সিলেবাসে হিন্দুত্ববাদ সংযোজন করে যুবসমাজকে ইসলামবিমুখ করার চক্রান্ত করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা এই কারিকুলাম চাই না। আমার আমাদের সন্তানদের ধ্বংস হতে দিতে পারি না।’

সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন—ইসলামী আন্দোলনের নেতা মাওলানা শফীউল্লাহ লহরী, মাওলানা সাইফুল ইসলাম সিদ্দিকী ও মাওলানা মাসুম বিল্লাহ। সভাপতিত্ব করেন তিতাস উপজেলা মুজাহিদ কমিটির সদর মো. বাবুল।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ঢাকায় ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ ১০ মে

আপডেট সময় : ১২:২৮:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪

ইসরায়েলি আগ্রাসন বন্ধ ও স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের দাবিতে ১০ মে (শুক্রবার) ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করবে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। শুক্রবার বাদ জুমা রাজধানীর বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে ইসলামী আন্দোলনের ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ কমিটির উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালন করা হবে।

বুধবার (৮ মে) ইসলামী আন্দোলনের সহকারী মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ কমিটির সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ আলম ও সেক্রেটারি ডা. শহিদুল ইসলাম এক যৌথ বিবৃতিতে শুক্রবারের বিক্ষোভ সমাবেশ সফল করার আহ্বান জানিয়েছেন।

তারা বলেছেন, বিশ্বের বিষফোঁড়া ইসরায়েলকে সম্মিলিতভাবে রুখে দিতে হবে। ইসরায়েলি আগ্রাসন বন্ধ করে ফিলিস্তিনকে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র ঘোষণার দাবিকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিয়ে তা আদায় করতে হবে।

শিক্ষা কারিকুলাম ঢেলে সাজানোর দাবি
দেশের বৃহত্তম জনগোষ্ঠী মুসলমানদের চিন্তা-চেতনার আলোকে শিক্ষা কারিকুলামকে ঢেলে সাজানোর দাবি জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

বুধবার (৮ মে) কুমিল্লার তিতাস উপজেলার শাহপুর মাদরাসা মাঠে ইসলামী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ইসলামবিরোধী শিক্ষা কারিকুলাম মেনে নেওয়া হবে না। কারিকুলাম থেকে শরীফ থেকে শরীফার গল্প বাদ দিতে হবে। কোনোভাবেই সমকামিতাকে প্রমোট করার সুযোগ দেওয়া হবে না।

মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেন, শিক্ষা সিলেবাস চরম পর্যায়ে গিয়ে ঠেকেছে। এ শিক্ষা সিলেবাস দেখে বোঝার কোনো উপায় নেই যে, এটা মুসলিম দেশের শিক্ষা কারিকুলাম।

ইসলামী আন্দোলনের আমির বলেন, দেশ স্বাধীন হয়েছে ইসলামের ভিত্তিতে। ইসলাম না থাকলে দেশ ও দেশের স্বাধীনতা থাকবে না। ভাষার জন্য দেশ স্বাধীন হয়নি। এজন্য ভারতের চক্রান্তে সিলেবাসে হিন্দুত্ববাদ সংযোজন করে যুবসমাজকে ইসলামবিমুখ করার চক্রান্ত করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা এই কারিকুলাম চাই না। আমার আমাদের সন্তানদের ধ্বংস হতে দিতে পারি না।’

সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন—ইসলামী আন্দোলনের নেতা মাওলানা শফীউল্লাহ লহরী, মাওলানা সাইফুল ইসলাম সিদ্দিকী ও মাওলানা মাসুম বিল্লাহ। সভাপতিত্ব করেন তিতাস উপজেলা মুজাহিদ কমিটির সদর মো. বাবুল।