ঢাকা ১২:০৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আর্সেনালের ১৪ বছরের স্বপ্ন ভেঙে সেমিতে বায়ার্ন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:০৯:৩৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪ ১৯ বার পড়া হয়েছে
ডেইলি আর্থ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে আর্সেনালকে ১-০ গোলে হারিয়ে ৪ বছর পর সেমিফাইনালে উঠেছে বায়ার্ন মিউনিখ। আরও একবার অ্যালিয়াঞ্জ অ্যারেনায় এসে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায় নিতে হলো ইংলিশ ক্লাব আর্সেনালকে।

২০১৫ আর ২০১৭, দুই বছরই এই মাঠে ৫-১ গোলে বিধ্বস্ত হয়ে নিজেদের ইউরোপিয়ান যাত্রা থামিয়েছিল ইংলিশ ক্লাবটি। সেই গল্পটা বদলাল না ২০২৪ সালে এসেও। ঘরের মাঠ এমিরেটসে ২-২ গোলের ড্রয়ের পর অ্যালিয়াঞ্জ অ্যারেনায় আর্সেনাল হারল ১-০ গোলে। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে শেষ চারে নিজেদের জায়গা নিশ্চিত করেছে জার্মান ক্লাবটি।

অপরদিকে ২০০৯ সালে সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ চারে ওঠার সুযোগ পেয়েছিল। এরপর কেটে গেছে ১৪ বছর। অবশেষে এবার গানারদের সামনে দারুণ একটি সুযোগ এসেছিল। সেটিই পণ্ড করে দিলো বায়ার্ন।

বুধবার রাতে বায়ার্নের ঘরের মাঠে দুর্দান্ত লড়াই শুরু করে দুইদল। কেউই কাউকে একবিন্দু ছাড় দিয়ে খেলছে না। গোলশুন্য সমতায় থেকেই বিরতিতে যায় দুই দল।

তবে প্রথমার্ধের খেলায় কৃতিত্ব দিতে হবে দুই গোলরক্ষককে। ম্যাচের ২৩ মিনিটে বায়ার্নের দারুণ একটি আক্রমণ রুখে দেন আর্সেনালের গোলরক্ষক ডেভিড রায়া। এর এক মিনিট পর বায়ার্নের জামাল মুসায়লার আরও একটি শট থেকে আর্সেনালের জালকে অক্ষত রাখেন রায়া।

৩২ মিনিটে গোল করার সবচেয়ে ভালো সুযোগ আসে আর্সেনালের। তবে গাব্রিয়েল মার্টিনেলির সেই শটটি ফিরিয়ে দেন বায়ার্নের গোলরক্ষক ম্যানুয়েল ন্যুয়ের।

দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমে জয়সূচক গোলটি পায় বায়ার্ন। ৬৩ মিনিটে দারুণ হেডে আর্সেনালের জালে বল জমা করেন হোসুয়া কিমিখ। তাকে অ্যাসিস্ট করেন রাফায়েল গুরেইরো।

এরপর ম্যাচে ফেরার মরণপণ চেষ্টা করে আর্সেনাল। দ্বিতীয়ার্ধে বেশকিছু খেলোয়াড় বদল করেন কোচ মিকেল আরতেতা। তাতেও বায়ার্নের জাল খুঁজে পায়নি গানাররা। অবশেষে ১-০ গোলে হেরেই দেশে ফিরতে হয় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবটিকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

আর্সেনালের ১৪ বছরের স্বপ্ন ভেঙে সেমিতে বায়ার্ন

আপডেট সময় : ১১:০৯:৩৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে আর্সেনালকে ১-০ গোলে হারিয়ে ৪ বছর পর সেমিফাইনালে উঠেছে বায়ার্ন মিউনিখ। আরও একবার অ্যালিয়াঞ্জ অ্যারেনায় এসে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায় নিতে হলো ইংলিশ ক্লাব আর্সেনালকে।

২০১৫ আর ২০১৭, দুই বছরই এই মাঠে ৫-১ গোলে বিধ্বস্ত হয়ে নিজেদের ইউরোপিয়ান যাত্রা থামিয়েছিল ইংলিশ ক্লাবটি। সেই গল্পটা বদলাল না ২০২৪ সালে এসেও। ঘরের মাঠ এমিরেটসে ২-২ গোলের ড্রয়ের পর অ্যালিয়াঞ্জ অ্যারেনায় আর্সেনাল হারল ১-০ গোলে। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে শেষ চারে নিজেদের জায়গা নিশ্চিত করেছে জার্মান ক্লাবটি।

অপরদিকে ২০০৯ সালে সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ চারে ওঠার সুযোগ পেয়েছিল। এরপর কেটে গেছে ১৪ বছর। অবশেষে এবার গানারদের সামনে দারুণ একটি সুযোগ এসেছিল। সেটিই পণ্ড করে দিলো বায়ার্ন।

বুধবার রাতে বায়ার্নের ঘরের মাঠে দুর্দান্ত লড়াই শুরু করে দুইদল। কেউই কাউকে একবিন্দু ছাড় দিয়ে খেলছে না। গোলশুন্য সমতায় থেকেই বিরতিতে যায় দুই দল।

তবে প্রথমার্ধের খেলায় কৃতিত্ব দিতে হবে দুই গোলরক্ষককে। ম্যাচের ২৩ মিনিটে বায়ার্নের দারুণ একটি আক্রমণ রুখে দেন আর্সেনালের গোলরক্ষক ডেভিড রায়া। এর এক মিনিট পর বায়ার্নের জামাল মুসায়লার আরও একটি শট থেকে আর্সেনালের জালকে অক্ষত রাখেন রায়া।

৩২ মিনিটে গোল করার সবচেয়ে ভালো সুযোগ আসে আর্সেনালের। তবে গাব্রিয়েল মার্টিনেলির সেই শটটি ফিরিয়ে দেন বায়ার্নের গোলরক্ষক ম্যানুয়েল ন্যুয়ের।

দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমে জয়সূচক গোলটি পায় বায়ার্ন। ৬৩ মিনিটে দারুণ হেডে আর্সেনালের জালে বল জমা করেন হোসুয়া কিমিখ। তাকে অ্যাসিস্ট করেন রাফায়েল গুরেইরো।

এরপর ম্যাচে ফেরার মরণপণ চেষ্টা করে আর্সেনাল। দ্বিতীয়ার্ধে বেশকিছু খেলোয়াড় বদল করেন কোচ মিকেল আরতেতা। তাতেও বায়ার্নের জাল খুঁজে পায়নি গানাররা। অবশেষে ১-০ গোলে হেরেই দেশে ফিরতে হয় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবটিকে।